সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
কিশোরগঞ্জে নদী থেকে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার কিশোরগঞ্জে অবৈধভাবে জমি দখল, যুবদল নেতা গ্রেফতার !   পেশা নয় নেশা  -আনোয়ার হোসেন ( এস আই) ♥ফোনে ফোনে প্রেম♥ আনোয়ার হোসেন (এস আই) শ্রমিক কল্যাণ তহবিল থেকে এ পর্যন্ত সাড়ে ৯ হাজার শ্রমিককে প্রায় ৪০ কোটি টাকা সহায়তা ডিমলায় বুড়িতিস্তা নদী ভাঙ্গন থেকে হামাক বাচাঁন পরিবেশবান্ধব উন্নত বাংলাদেশ গঠনে ইঞ্জিনিয়ারদের আরো অবদান রাখতে হবে- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ডিমলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নারীকে হত্যা বিএনপি নেতাদের বক্তব্যে মনে হয় বেগম জিয়া কারাগারে থাকলেই ভালো হতো- তথ্যমন্ত্রী অবশেষে স্হগিত হলো বোয়ালখালী কেন্দ্রিয় সমবায় সমিতির নির্বাচন

দেশে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত মজুত আছে- বাণিজ্যমন্ত্রী

ইন্দোবাংলা রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম: ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৭ বার পঠিত

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি বলেছেন, দেশে বর্তমানে প্রায় ৬ লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ মজুত রয়েছে। সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি হচ্ছে। ট্রেডিং করপোরেশন অভ্ বাংলাদেশ (টিসিবি)’র মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। পেঁয়াজ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে হবে এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত পেঁয়াজ কেনা থেকে বিরত থাকতে হবে।

মন্ত্রী আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পেঁয়াজের মজুত, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করার সময় এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ভারত থেকে এলসি’র মাধ্যমে ক্রয়কৃত পেঁয়াজ যেগুলো সীমান্ত পার হবার অপেক্ষায় আছে, সেগুলো দু’একদিনের মধ্যে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে বলে জানা গেছে। তুরষ্ক ও মিসর থেকে টিসিবি’র মাধ্যমে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে, অল্পদিনের মধ্যে এগুলো দেশে পৌঁছাবে। টিসিবি এবার বড় ধরনের পেঁয়াজের মজুত গড়ে তোলার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের আগেই আন্তর্জাতিক টেন্ডারের মাধ্যমে এগুলো ক্রয় করা হয়েছিল। ই-কমার্সের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রয়ের উদ্যোগ নিয়েছে টিসিবি। একমাসের মধ্যে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে। ভোক্তাগণ পেঁয়াজ ব্যবহারে একটু সাশ্রয়ী হলে কোন সমস্যা হবে না।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, গত বছরের তুলনায় দেশে এবার প্রায় এক লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ বেশি উৎপাদিত হয়েছে। আগে থেকেই পেঁয়াজের আন্তর্জাতিক বাজারের প্রতি নজর রাখা হচ্ছিল। সে কারণে টিসিবি’র মাধ্যমে পেঁয়াজ আমদানির ব্যবস্থা করা হয় এবং গত ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ টাকা মূল্যে দেশব্যাপী খোলা বাজারে বিক্রয় শুরু করা হয়, তা আগামী বছর মার্চ পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দীন, অতিরিক্ত সচিব শরিফা খান, অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মোঃ ওবায়দুল আজম, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা ও টিসিবি’র চেয়ারম্যান ব্রি. জে. মোঃ আরিফুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ