শুক্রবার, ১০ Jul ২০২০, ০৬:১০ অপরাহ্ন

বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় সরকারী চাকুরিজীবী এক ব্যক্তির উপর সন্ত্রাসী হামলা

Rouful Alam
  • আপডেট টাইম: ২৯ মে, ২০২০
  • ১৮১ বার পঠিত

ইন্দো-বাংলা ডেক্স নিউজঃ-

গত রবিবার ২৪ মে ঈদ-উল-ফিতরের আগের দিন দুপুর বেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তুচ্ছ ঘটনায় বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার সাতশৈয়া গ্রামের সংঘবদ্ধ চিহ্নিত সন্ত্রাসী কর্তৃক এলোপাতাড়ী মারপিটে একই গ্রামের বাসিন্দা সরকারী চাকুরিজীবী খুলনা জেলা জজ আদালতের ষ্টেনো-গ্রাফার মোল্লা গোলাম ফারুক গুরুতর আহত হয়। আহত মোল্লা গোলাম ফারুক সাতশৈয়া গ্রামের মৃত মোল্লা নওশের আলীর ছেলে। এ ঘটনায় আসামীদের নাম উল্লেখ করে ফকিরহাট মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাহার মামলা নং-১৭, তারিখঃ ২৪/০৫/২০২০ইং

ঘটনানার বিবরনে জানা যায় যে,গত (২৪ মে) রবিবার দুপুরে ফকিরহাট উপজেলার সাতশৈয়া গ্রামের মোল্লা বাচ্চুর বাড়ির সামনে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী আসামীদের সাথে কথা কাটাকাটি হয় মোল্লা গোলাম ফারুকের সাথে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মামলার প্রধান আসামী মোল্লা রুবেল হোসেন ডলার তার হাতে থাকা দা দিয়ে মোল্লা গোলাম ফারুক এর উপর অতর্কিত হামলা চালায়। পরবর্তিতে অন্যান্য আসামীরা লোহার রড,কাঠ ও বাঁশের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। এতে গুরুতর আহত হন মোল্লা গোলাম ফারুক। এমন হামলা দেখে আহত মোল্লা গোলাম ফারুককে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন তাঁর চাচী মর্জিনা বেগম। সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা মর্জিনা বেগমকেও অতর্কিতভাবে আঘাত করিয়া যখম করে ও তাহার পড়নে থাকা কাপড় টানাটানি করিয়া শ্লীলতাহানী করিয়াছে।
এছাড়াও সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী আসামীরা আহত মোল্লা গোলাম ফারুকের পকেটে থাকা একটি দামি মোবাইল সেট সহ নগদ ৪২ হাজার ৫’শ টাকা নিয়ে নেয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে মামলার এজাহার বিবরনীতে। তাছাড়া দুস্কৃতিকারীরা ভিকটিম মোল্লা গোলাম ফারুকের প্রাণ নাশের হুমকি সহ বাড়ির মহিলাদের সাথে আসামীরা অশালীন গালি-গালাজ করে বলে মামলার এজাহার বিবরনি থেকে জানা যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় আহত মোল্লা গোলাম ফারুক ও তাঁর চাচী মর্জিনা বেগমকে স্থানীয় ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনার পরপরই হামলার শিকার মোল্লা গোলাম ফারুকের মা মোসাঃ আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ফকিরহাট মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে উল্লেখিত আসামীরা হল- ফকিরহাট সাতশৈয়া এলাকার মোল্লা রুবেল হোসেন ডলার,মোল্লা জোবায়ের হোসেন দিনার, মোল্লা বনি আমিন, মোল্লা রুহুল আমিন, মোল্লা মতিউর রহমান, মোল্লা হাফেজ ও মোল্লা বাচ্চু।
এর আগে ভুক্তভোগীরা মোল্লা ডলারের বিরুদ্ধে কয়েক দফা থানায় অভিযোগ দাযের করে।

এছাড়াও এ মামলার প্রধান আসামী মোল্লা রুবেল হোসেন ডলারের বিরুদ্ধে একটি অপহরন মামলা সহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।
এ বিষয়ে ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সাঈদ মোঃ খাইরুল আনাম জানান ঘটনার বিবরণে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে এবং আসামীদের আটকের অভিযান অব্যহত রয়েছে।
এ ঘটনায় ভূক্তভোগী পরিবারটির দাবী এ মামলার প্রধান আসামী এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মোল্লা রুবেল হোসেন ডলার সহ সকল আসামীদের অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় আনা হোক।

খুলনা আদালতের একজন কর্মচারীর উপর এমন সন্ত্রাসী হামলার বিষয় তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং সংশ্লিষ্ট অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানিয়েছে খুলনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের কর্মচারীবৃন্দ।

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মুজিব শতবর্ষ