মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন

রাস্তা কেটে জমিতে পরিণত

ইন্দোবাংলা প্রতিনিধি, ডিমলা (নীলফামারী)
  • আপডেট টাইম: বৃহস্পতিবার ৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১৯ বার পঠিত

নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী দক্ষিন সোনাখুলি ৭নং ওয়ার্ড মরাতিস্তা নদীর উপর দিয়ে ১টি কেয়ারের রাস্তা/ বাধঁ যা ১৯৯৪ – ৯৫ ইং সনে নির্মাণ করা হয়। রাস্তাটি নির্মাণের ফলে অত্র এলাকার হাজার হাজার জনসাধারণের বসত বাড়ি, পুকুর ও চাষাবাদি জমির ফসল বন্যার কবল হতে রক্ষা পায়।

জনসাধারণের চলাচল, ভূট্টা ও ধানসহ বিভিন্ন ফসলাদি বহনের জন্য যুগোপযোগি রাস্তা হিসাবে ব্যবহার হয়ে আসছে। তবে দুঃখ জনক হলে ও সত্যি এটাই যে, গত চার পাঁচ মাস হতে উক্ত রাস্তা সংলগ্ন জমির মালিকগণ রাস্তাটি কেটে জমিতে পরিনত করছে। যার ফলে রেসানলে পরছে জনসাধারণ যা দেখার মতো কেউ নেই।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা মেলে রাস্তা কেটে কেটে জমি সমান করা কছিমুদ্দিনের ছেলে মোকছেদ আলীর সাথে। কেন যান চলাচল রাস্তাটি কাটছেন? এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি তেলে বেগুনে জলে ওঠার ন্যায় জবাব দেয়, আমাকে চিনেন, জানেন আমার হাত কত লম্বা, আমার জমি আমার রাস্তা, আমি কাটবো না ছাটবো সেটা আমার ব্যাপার। আপনাদের কিছু করার থাকলে করেন।

এব্যাপারে এলাকাবাসী বলেন, আমরা বিষয়টি চেয়ারম্যান মহোদয় কে মৌখিক ভাবে জানিয়েছি, তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সরণাপূর্ন হওয়ার পরামর্শ দেন।

এলাকাবাসীর প্রানের দাবি উক্ত জমির মালিকগণকে আইনগত ভাবে বাধা নিষেধ না করলে উক্ত রাস্তাটি সম্পূর্ন রুপে ধংশ হবে। জনসাধারণের চলাচল কৃষি সামগ্রী বহনের জন্য উর্ধতন কতৃপক্ষ যেন তদন্ত  সাপেক্ষে প্রয়োজনীও ব্যবহার গ্রহণের পাশাপাশি রাস্তাটি পূর্ণ সংস্কার করে অত্র এলাকার জনসাধারণের চলাচলের পথ সুগম করেন।

ইন্দোবাংলা/এমএএস

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ