শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন

কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান ১৯৮৪ ব্যাচের সাধারণ সভা ও বন্ধুদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান

রউফুল আলম
  • আপডেট টাইম: শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৫২ বার পঠিত

সাহেব আলী, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী):
বন্ধু মানব জীবনের সবচেয়ে কাছের এক সম্পর্কের নাম। জন্মের পর থেকে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত মানুষের জীবনের অনেক ধাপ পার করতে হয়। এই ধাপগুলোতে যে মানুষটা তার পরিবারের বাইরে সব সময় পাশে থাকে সেই ব্যক্তিটি হয়ে থাকে বন্ধু। বন্ধুত্ব তাই একটি মায়ার নাম ,একটি ভরসার নাম। একজন বন্ধুর গুরুত্ব যে কতখানি তা শুধুমাত্র যে ব্যক্তির বন্ধু নেই সেই ব্যক্তিটি বুঝতে পারে। একজন প্রকৃত বন্ধু আপনার যেমন সুখের দিনে পাশে থাকবে ঠিক তেমনি আপনার বিপদের দিনেও আপনার পাশে থাকবে। আপনার সফলতায় যেমন তালি দিবে ঠিক তেমনি আপনার ব্যর্থতায় ভুলগুলো ধরিয়ে দিবে। মানুষের শিক্ষা জীবন শুরু হয় স্কুল থেকে। তাই অনেকে তার জীবনের বেশিরভাগ বন্ধুগুলো স্কুল জীবনে পেয়ে থাকে। তাই বলা হয়ে থাকে স্কুল জীবনের বন্ধুগুলো হয়ে থাকে সবথেকে বেশি কাছের এবং আপনজন। হয়তো স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে সেই বন্ধুদের সাথে পরবর্তীতে একসাথে থাকা হয় না। কিন্তু কাছের বন্ধুগুলো একসাথে না থেকে ও তারা মনে রাখে। যার প্রকৃত উদাহরণ কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান ১৯৮৪ সালের এস.এস.সি ব্যাচ। আর এই ব্যাচের শ্লোগান হলো, সম্প্রতিতে বন্দুর জন্য বন্ধু

আজ হয়ে গেল নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান ১৯৮৪ (এস.এস.সি) ব্যাচের সাধারণ সভা ও বন্ধুদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠান। গতকাল দুপুর ২.৩০ মিনিটে কিশোরগঞ্জ কমিউনিটি সেন্টার (বাদশাহ মেডিকেল স্টোর) প্রাঙ্গণে সম্প্রতিতে বন্ধুর জন্য বন্ধু কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান এস.এস.সি ১৯৮৪ ব্যাচের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো সাধারণ সভা ও বন্ধুদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান মূহুর্তটি। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ‘সম্প্রতিতে বন্ধুর জন্য বন্ধু কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান এস.এস.সি ১৯৮৪ ব্যাচে’র সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রউফ বাদশাহ আসন গ্রহণ করেন এবং তাঁর অনুমতিক্রমে সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী আকবর-এর সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, আলোচনা সভার সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রউফ বাদশাহ। তিনি বলেন, ১৯৮৪ সালের এস.এস.সি ব্যাচের ৬৭ জন বন্ধু আমরা এক প্লাটফরমে দাড়িয়ে সম্প্রতিতে বন্ধুর জন্য বন্ধু মিলে দেশ-মাটি-মানুষের কল্যাণে সেবামূলক কাজ করে যাবো। এস.এস.সি পাশ করার ৩৬ বছর পেরিয়ে গেছে। অনেক বন্ধুই না ফেরার দেশে চলে গেছে। না জানি তাদের পরিবারের সদস্যরা কি করছে? কেমন আছে? তাদের জন্য কিছু করতে চাই। উপস্থিত সকলের সর্বসম্মতিক্রমে সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী আকবর কমিটির পরিচিতি ও গত মিটিংয়ের রেজুলেশন পাঠ করে শোনান। সকলের সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়ন করা হয়। কয়েকজন অসহায় বন্ধুসহ প্রয়াত বন্ধু হাবিবুর রহমান, বছির উদ্দিনের পরিবারের সদস্যদের নগদ অর্থসহায়তা প্রদান করা হয়। সম্প্রতিতে বন্ধুর জন্য বন্ধু কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান ১৯৮৪ (এস.এস.সি) ব্যাচ এক ঐতিহাসিক নজির

অনেক বন্ধুই বক্তব্য দিতে গিয়ে বলেন, বন্ধু এক মূল্যবান উপহার যাকে কোনও দাম বা অর্থ দিয়ে বিচার করতে পারি না। আত্মাটা হয়তো আলাদা কিন্তু, দুই আত্মার তারগুলো জুড়ে গিয়ে যে সম্পর্ক তৈরি হয় তা অত্যন্ত সুমধুর। তাই বন্ধুত্ব এতটা সুন্দর। তাই বন্ধু মানে উচ্ছ্বাস, বন্ধু মানে হাসি। বয়স বাড়ে, মনের মসজিদে জমে ওঠে নানা খেয়ালের ভিড়, তারমধ্যে ফিরে আসে এমনই সব স্মৃতি, সত্যি তো বন্ধু মানে তো জীবন, আর সেটা যদি ছোটবেলায় কাউকে বলে দেওয়া যায় সেটাও একটা অনুভূতি, জীবনের চলার পথে সেই ছোট বেলার কথাটা কারোর ক্ষেত্রে সফল হয়, কারোর হয় না, কিন্তু তাই বলে তো বন্ধুত্ব হারিয়ে যায় না। কলেজ লাইফ, ভার্সিটি লাইফের বন্ধুত্ব নাকি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হারিয়ে যায়। কিন্তু স্কুল লাইফের বন্ধুত্ব কখনো ভোলা যায়না। একটা সময়ে স্কুলের বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলেও সেই পুরানো বন্ধুত্বটা ঠিকই মজবুত থাকে। এই কথার সঙ্গে একমত অনেকে। কারণ পরবর্তী জীবনের বন্ধুরা স্কুল জীবনের বন্ধুদের মতো নিখাঁদ হয় না। স্কুল জীবনের বন্ধুরা সমপর্যায়ের না হলেও এদের কথা ভুলা যায় না। তাই কিশোরগঞ্জ হাইস্কুলিয়ান ১৯৮৪ (এস.এস.সি) ব্যাচের বন্ধুদের নিয়ে এত আয়োজন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ