মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:০৩ অপরাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

করোনা সচেতনতা

প্রসঙ্গঃ করোনা সচেতনতা নজরুল বাঙালি।

খুব ছোট বেলা থেকে শুনে আসছি দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর আরো একটি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ হবে তার প্রতিপাদ্য হবে পৃথিবীর পরাশক্তি দেশ গুলো দূর্বল সম্পদশালী দেশ গুলোর আক্রমণ করা হবে এতে কোটি কোটি মানুষের প্রান যাবে কিন্তু সম্পদ গুলো থেকে যাবে আর এ যুদ্ধ হবে সারা বিশ্বব্যাপী।যাক তবে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আলামত না দেখা গেলোও তবে একটি বিশ্বযুদ্ধ যে বিশ্বব্যাপী ঘটে গেছে এটি কারো অজানা নয়। আর এটি কোন হিটলারের নাৎসি বাহিনী অত্যাচার নয় বা জাপান ব্রিটিশের যুদ্ধ ও নয় এই যুদ্ধটির নাম কেভিট-১৯ বা করোনা। আজ করোনা সারা পৃথিবীতে মরন আগ্রাসন মারাত্মক ভাবে ছড়িয়ে রয়েছে আতংক গ্রস্ত সারা দুনিয়ায় মানুষ। এ মৃত্যু যে কত কঠিন যন্ত্রণা যারা করোনা আক্রান্ত হয়ে সর্বস্ব হারিয়ে বেঁচে আছেন শুধু তারাই হাড়ে হাড়ে উপলব্ধি করতে পেরেছেন। আমরা বাঙালিরা বুজি দুবেলা দুমুঠো ভাত খেয়ে বেঁছে থাকার নাম জীবন। এটা আমরা মাথা মোটা বাঙালিরা মনে করি।আবার কিছু আবাল বাঙালি মনে করে উপবাস না থেকে করোনায় মৃত্যু অনেক ভালো তার মানে আপনার সন্পদের দরকার। এখানে কথা থেকে যায় আপনি যখন করোনা করাল থাবা থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারবেনা তখন আপনার এই যক্ষের ধন কার জন্য। বুঝলাম আপনি কোন স্বাস্থ্যবিধি মানবেন না মুখে মাক্স পড়বেন না আপনি যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে দিব্যি আরামে ঘুরছে আপনি মারা যাবেন কিন্তু আপনি যে আরও কতজন কে বাঁচার স্বপ্ন কে মলান করে দিলেন এর জবাব কি?আমরা ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি পাক-হানাদারদের মৃত্যু যন্ত্রণা থেকে বেঁচে থাকার জন্য মানুষ দিগ্বিদিক পালিয়ে বেড়িয়েছে নীজের জীবন রক্ষায়। ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ থেকে এই মরণব্যাধি করোনা যুদ্ধ কম ভয়াবহ নয়।আমরা ৭৪ এর দুর্ভিক্ষ দেখেছি তখন না খেয়ে যত মানুষ মরেনি এই মরন ব্যাধি করোনা যুদ্ধে তার চেয়েও বেশী মানুষ মারা গিয়েছে। তাই বলছি ১০ বা ১৫ দিন মানুষ না খেয়ে মারা যাবে না তাছাড়া ও সরকার কম পরিসরে হলেও অসহায়দের পাশে দাঁড়ানো সেই ব্যবস্থা করেছেন। তাই আবারও বলছি একটি জাতিকে বাঁচাতে আপনি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন আপনি নিজে বাঁচুন আগামী প্রজন্মকে বাঁচার জন্য সুযোগ করে দিন। কারো কোন গুজবে কান দিবেন না। একটি জাতিকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করুন। আপনার সচেতনতাই পারে একটি জাতিকে রক্ষা করতে।

 

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২২।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি