রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:০৫ অপরাহ্ন

আনিসুল হকের কান্নার জবাব কী?

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার ১৮ মে, ২০২১
  • ১৪২ বার পঠিত

কাঁদলেন আনিসুল হক। আদালত চত্বরে এসে সহকর্মী রোজিনা ইসলামের বন্দিদশা দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন তিনি। তার চোখ দিয়ে অঝোরে গড়িয়ে পড়ল বেদনার অশ্রু। প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক সহকর্মী রোজিনা ইসলামের বন্দিদশা দেখে স্বাভাবিক থাকতে পারলেন না তিনি।

রোজিনা ইসলামের বিষণ্ন মুখ কবি, প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক, শক্তিমান গদ্য লেখক ও সাংবাদিক আনিসুল হককে এতটাই আহত করে যে, হাউমাউ করে কাঁদতে শুরু করেন তিনি। কাঁদতে কাঁদতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের একটি ভবনের সিঁড়িতে বসে পড়েন তিনি। দেশবরেণ্য এই লেখক তখন শিশুর মতো কাঁদতে থাকেন। একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার গর্বিত সন্তান হিসেবে অসহায়বোধ করছিলেন তিনি।
সেখানে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে আনিসুল হক বলেন, ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে আমাদের স্বজনের জীবন দিয়ে, রক্ত দিয়ে স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনা হয়েছে, আজ যখন তার সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে দেশ সুন্দর আগামীর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, তখন একজন বয়স্ক নারী সাংবাদিকের ওপর এ অমানবিক নির্যাতন, অবিচার আমাদের ব্যথিত করে।’
প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক এবং কিশোর আলোর সম্পাদক পদে কর্মরত আনিসুল হক আরও বলেন, ‘সরকার চাইলেই রোজিনা ইসলামের মামলা প্রত্যাহার করে নিতে পারে। তারপরও আমরা আইনগতভাবে লড়াই করছি। আমরা জানি, আদালতে আমরা ন্যায়বিচার পাব এবং আমরা ন্যায়বিচার পেয়েছি। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে রিমান্ড দাবি করা হয়েছিল। আদালত রিমান্ড নামঞ্জুর করেছেন। রোজিনা ইসলামের জামিন শুনানির জন্য আদালত ২০ মে দিন ধার্য করেছেন।’
আনিসুল হকের কান্নার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ৬ সেকেন্ডের ভিডিওতে তার আবেগঘন এই কান্না কী বার্তা দেয় আমাদের? কী এর জবাব?
ইন্দোবাংলা/আর. পি

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ