বুধবার, ২৮ Jul ২০২১, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ কোটি ২০ লক্ষাধিক টাকার মানবিক সহায়তা

ইন্দোবাংলা রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম: শনিবার ১২ জুন, ২০২১
  • ৭৫ বার পঠিত

ময়মনসিংহ বিভাগে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মোকাবিলায দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক মানবিক সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ত্রাণবিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

ময়মনসিংহ জেলায় ত্রাণসহায়তা হিসেবে বরাদ্দকৃত ৪ কোটি ৭২ লাখ ৭০ হাজার টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ৩ কোটি ২০ লাখ ৮ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপকৃত হয়েছে ৬৯ হাজার ৩৭৩টি পরিবারের ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪২২ জন মানুষ। ময়মনসিংহ মহানগর এলাকায়ও ত্রাণ হিসেবে বরাদ্দকৃত ৫ লাখ টাকা ১ হাজার ২৫০টি পরিবারের ৬ হাজার ২৫০ জন মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। জেলায় ভিজিএফ (আর্থিক সহায়তা) হিসেবে বরাদ্দকৃত ৩৯ কোটি ২ লাখ টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ৩৮ কোটি ৯২ লাখ টাকা। ফলে উপকৃত হয়েছে ৮ লাখ ৬৫ হাজার ১০১টি পরিবারের ৪৩ লক্ষ ২৫ হাজার ৫০৫ জন মানুষ। এছাড়া শিশুখাদ্য ক্রয়বাবদ বরাদ্দকৃত ১৫ লাখ টাকা নগদ অর্থের মধ্যে ১৪ লাখ টাকা ৩ হাজার ৫০০টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। গোখাদ্যের জন্য বরাদ্দকৃত ১৩ লাখ টাকা বিতরণ ও প্রক্রিয়াধীন আছে। উল্লেখ্য, এ জেলায় ৩৩৩ নম্বরে কলের মাধ্যমে মোট উপকারভোগী পরিবার ৬১৫টি।

জামালপুর জেলায় ত্রাণসহায়তা হিসেবে বরাদ্দকৃত ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ২ কোটি ১৬ লাখ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপকারভোগী হয়েছে ৪৩ হাজার ৩০০টি পরিবারের ১ লাখ ৭৩ হাজার ২০০ জন মানুষ। ভিজিএফ (আর্থিক সহায়তা) হিসেবে বরাদ্দকৃত ১৫ কোটি ৪০ লক্ষ ৭৮ হাজার টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ১৩ কোটি ৭১ লাখ ৪৭ হাজার টাকা। ৩ লাখ ৪ হাজার ৭৭৩টি পরিবারের ১২ লাখ ১৯ হাজার ৯২ জন মানুষের মধ্যে এ অর্থ বিতরণ করা হয়। এছাড়া জেলায় শিশুখাদ্য হিসেবে বরাদ্দকৃত ৭ লাখ টাকা বিতরণ প্রক্রিয়াধীন আছে এবং এ পর্যন্ত ৩৩৩ নম্বরে কলের মাধ্যমে মোট উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ৪৯২টি।

নেত্রকোনা জেলায় ত্রাণ সহায়তা হিসেবে বরাদ্দকৃত ৫ কোটি ১৪ লক্ষ টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ২ কোটি ৪৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে এবং এতে উপকারভোগী ৫৫ হাজার পরিবারের ২ লাখ ৭৪ হাজার মানুষ। ভিজিএফ (আর্থিক সহায়তা) হিসেবে বরাদ্দকৃত ৫ কোটি ২৯ লাখ ৮০ হাজার টাকার পুরোটাই বিতরণ করা হয়েছে । ১ লাখ ১৭ হাজার ৭৩৪টি পরিবারের ৫ লাখ ৮৮ হাজার ৬৭০ জন মানুষের মাঝে এ অর্থ বিতরণ করা হয়। এছাড়া, শিশুখাদ্য হিসেবে বরাদ্দকৃত ১০ লাখ টাকার মধ্যে ৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ১৩২০। গোখাদ্য হিসেবে বরাদ্দকৃত ১০ লাখ টাকার মধ্যে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা ১৭০টি পরিবারের ৮৫০ জন মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়। এ পর্যন্ত ৩৩৩ নম্বরে কলের মাধ্যমে জেলায় মোট সেবাগ্রহীতার পরিবারসংখ্যা ৬২টি।

শেরপুর জেলায় ত্রাণ হিসেবে বরাদ্দকৃত ১ কোটি ৬০ লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৫৩ লাখ টাকা বিতরণ করা হয়েছে এবং এতে উপকারভোগীর সংখ্যা ৩০ হাজার ৫১৭টি পরিবারের ১ লাখ ৫২ হাজার ৭৪০ জন। জেলায় ভিজিএফ (আর্থিক সহায়তা) হিসেবে বরাদ্দকৃত ৩ কোটি ৮২ লক্ষ টাকার মধ্যে পুরোটাই বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপকারভোগী ৮৪ হাজার ৯৫৯টি পরিবারের ৪ লাখ ২৪ হাজার ৭৯৫ জন। শিশুখাদ্য হিসেবে বরাদ্দকৃত ৫ লাখ টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ৩ লাখ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। ফলে উপকৃত হয়েছে ৮০২টি পরিবার। গোখাদ্য হিসেবে বরাদ্দকৃত ৫ লাখ টাকার মধ্যে ৬০ হাজার টাকা ৯৮টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

 

ইন্দোবাংলা/পি.এইচ

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ