শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন

শোকের মাসে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি

জেষ্ঠ প্রদিবেদক
  • আপডেট টাইম: রবিবার ১ আগস্ট, ২০২১
  • ৯২ বার পঠিত

শোকের মাস আগস্ট। ১৯৭৫ সালের এ মাসে বাঙালি হারায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ২০০৪ সালের এ মাসেই গ্রেনেড হামলা করে জাতির জনকের কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল।

শোকাবহ আগস্টকে সামনে রেখে মাসব্যাপী কর্মসূচি নিয়েছে আওয়ামী লীগ। শনিবার (৩১ জুলাই) দলটির দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কর্মসূচি ঘোষণা কথা হয়।

ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী, আগস্টের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে আলোর মিছিলের মাধ্যমে কর্মসূচি শুরু হয়। আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ এ কর্মসূচিতে অংশ নেয়।

  • ১ আগস্ট সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণ রক্তদান ও প্লাজমা সংগ্রহ কর্মসূচি পালন করবে কৃষক লীগ। একইদিন বিকেল তিনটায় আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও শহীদ মিনার যুবলীগের আগস্ট মাসব্যাপী কোরান খতম এবং ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউসহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অসহায়-দুঃস্থদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ শুরু।
  • ২, ৩ ও ৪ আগস্ট কোনো কর্মসূচি আপাতত ঘোষণা করা হয়নি।
  • ৫ আগস্ট সকাল আটটা ৩০ মিনিটে ধানমন্ডি আবাহনী ক্লাব প্রাঙ্গণ ও সকাল নয়টা ১৫ মিনিটে যথাক্রমে বনানী কবরস্থানে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামালের জন্মদিন : শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করবে আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, উত্তর ও সহযোগী সংগঠনসমূহ।
  • ৫ আগস্ট থেকে মাসব্যাপী ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্থানে এতিম ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ। সন্ধ্যা সাতটায় সভা বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা করবে দলটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটি।
  • ৭ আগস্ট শনিবার সন্ধ্যা সাতটায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্মরণে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা করবে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটি।
  • ৮ আগস্ট সকাল নয়টায় বনানী কবরস্থান বঙ্গমাতা শহীদ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন : শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, কোরান খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। একইদিন সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ‘বাঙালির মহীয়সী নারী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সময় এক হাজার চিকিৎসকের মাঝে বিশেষ উপহার সামগ্রী বিতরণ করবে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ-কমিটি।
  • ৯ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা করবে আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ।
  • ১১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করবে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ।
  • ১২ আগস্ট সন্ধ্যা সাতটায় ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে তদন্ত কমিশন গঠনের দাবিতে ভার্চুয়ালি আলোচনা সভা করবে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটি।
  • ১৩ আগস্ট ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্থানে ১৫ই আগস্ট শহীদদের স্মরণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ ঢাকা মহানগর যুবলীগ (দক্ষিণ)। এদিন থেকে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর প্রাঙ্গণে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত তিন দিনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী করবে স্বেচ্ছাসেবক লীগ।
  • ১৪ আগস্ট বনানী কবরস্থানে ১৫ আগস্ট শহীদদের স্মরণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করবে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগ। বিকালে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শোক দিবসের আলোচনা করবে মহিলা শ্রমিক লীগ।
  • ১৫ আগস্ট সূর্যোদয়ের ক্ষণে বঙ্গবন্ধু ভবন এবং কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সংগঠনের সব স্তরের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল আটটা ৩০ মিনিটে ধানমন্ডিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা অর্পণ। সকাল ১১টায় টুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাতেহা পাঠ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। বাদ যোহর দেশের সব মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল। সুবিধামতো সময়ে মন্দির, প্যাগোডা, গির্জা, উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা। দুপুরে অসচ্ছল, এতিম ও দুঃস্থ মানুষদের মাঝে খাদ্য বিতরণ। বাদ আছর মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল।
  • ১৬ আগস্ট বিকেলে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শোক দিবসের আলোচনা সভা করবে আওয়ামী লীগ।
  • ১৭ আগস্ট ২০০৫ সালে সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলাকারীদের প্রতিবাদে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা করবে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ ও মৎস্যজীবী লীগ।
  • এদিন সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে সব সাংগঠনিক ইউনিটে (শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ব্যতীত) যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কালো পতাকা উত্তোলন ও ১ মিনিট নীরবতা পালন করবে ছাত্রলীগ।
  • ১৮ আগস্ট সকালে ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রশমনে বঙ্গবন্ধুর দর্শন এবং বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভা এবং করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করবে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ-কমিটি। এদিন বিকালে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা করবে যুব মহিলা লীগ।
  • ১৯ আগস্ট আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা করবে মহিলা আওয়ামী লীগ।
  • ২০ আগস্ট বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ।
  • ২১ আগস্ট সকালে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ বেদীতে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।
  • ২২ আগস্ট নারকীয় গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে আলোচনা সভা ও মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি পালন করবে যুব মহিলা লীগ। একই দিন আলোচনা সভা করবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।
  • ২৪ আগস্ট বনানী কবরস্থানে আইভী রহমানের স্মরণে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশ নেবে আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনসমূহ।
  • ২৫ আগস্ট রাত আটটায় ভার্চুয়াল শোক সভা করবে মহিলা আওয়ামী লীগ। একই দিনে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর বিতর্ক প্রতিযোগিতা করবে কৃষক লীগ।
  • ২৬ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা আয়োজন করবে জাতীয় শ্রমিক লীগ।
  • ২৮ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করবে তাঁতী লীগ।
  • ২৯ আগস্ট রোববার জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করবে জাতীয় শ্রমিক লীগ।
  • ৩০ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করবে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ।
  • ৩১ আগস্ট মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভার আয়োজন করবে কৃষক লীগ।

উপরোক্ত কর্মসূচিতে কোনো পরিবর্তন, পরিবর্ধন, সংযোজন, বিয়োজন হলে তা যথাসময়ে সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানানো হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।‌

১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস, সীমিত পরিসরে কড়াকড়িভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথাযোগ্য মর্যাদায় ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে পালনের জন্য দেশবাসী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং এর সকল সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

জাতীয় শোক দিবসে দেশের সব মসজিদে দোয়া মাহফিল এবং মন্দির, প্যাগোডা, গির্জাসহ অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে দেশব্যাপী বিশেষ প্রার্থনা আয়োজনের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে জাতীয় শোক দিবসসহ আগস্ট মাসের পালনীয় দিবসগুলোতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মসূচি গ্রহণ করে তা পালনের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সব জেলা, মহানগর, উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড এবং সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সমস্ত শাখার নেতাকর্মী ও সমর্থকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

ইন্দোবাংলা/সি,কে/এম,আর

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ