শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০২ পূর্বাহ্ন

দুর্যোগ সহনীয় জাতি গঠনে সরকার কাজ করছে- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ইন্দোবাংলা প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ
  • আপডেট টাইম: বৃহস্পতিবার ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৫১ বার পঠিত
ছবিঃ সংগৃহীত

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার দুর্যোগ সহনীয় জাতি গঠনে কাজ করছে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণ ছাড়াও ভৌগোলিক অবস্থানগত কারণে আমাদেরকে নানা ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হয়। প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষের কোনো হাত নেই, কিন্তু আমরা যদি পূর্বপ্রস্তুতি গ্রহণ করতে পারি তাহলে এসব দুর্যোগ মোকাবেলা করে টিকে থাকা আমাদের জন্য অনেক সহজ হবে । আর শেখ হাসিনার সরকার সে কাজটাই করে যাচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ নারায়ণগঞ্জে বাংলাদেশ নৌবাহিনী পরিচালিত নারায়ণগঞ্জ ডকইয়ার্ড এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস লিমিটেড-এ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জন্য নির্মাণাধীন ৬০টি মাল্টিপারপাস এক্সেসিবল রেসকিউ বোটের মধ্যে ৮টি বোট হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সচিব মোঃ মোহসীন, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর রিয়ার এডমিরাল এম শফিউল আজম, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ আতিকুল হক এবং আদর্শ প্রতিবন্ধী উন্নয়ন কেন্দ্রের সভাপতি কাজল রেখা।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নব-নির্মিত এসকল রেসকিউ বোটের প্রতিটির দৈর্ঘ্য ৫৪ ফুট ও প্রস্থ ১২.৫০ ফুট এবং যা প্রতি ঘন্টায় ৭ নটিক্যাল মাইল গতিতে চলতে সক্ষম। প্রতিটি রেসকিউ বোট ৮০ জন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন যার মাধ্যমে বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ কবলিত অঞ্চলের জনগণকে দ্রুততম সময়ে নিরাপদ স্থানে স্থানান্তর করা সম্ভব হবে। এছাড়া বোটগুলো যেকোনো দুর্যোগকালে স্বল্প সময়ে ত্রাণসহ বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করতে সক্ষম হবে। বোটগুলোর ড্রাফট অত্যন্ত কম হওয়ায় দেশের বিভিন্ন নদী পথে এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলসমূহে বন্যা দুর্গতদের সেবায় যাতায়াত করাসহ যেকোনো স্থানে ল্যান্ডিং করার মাধ্যমে দুর্গত এলাকায় উদ্ধারকার্য পরিচালনা করতে পারবে। বোটগুলোতে আহত ব্যক্তিদের জন্য হুইল চেয়ার, ওয়াকিং ফ্রেম ও স্ট্রেচার এর ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ দেশীয় ব্যবস্থাপনায় রেসকিউ বোটগুলো তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশ নৌবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত ডকইয়ার্ড এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস লিঃ, নারায়ণগঞ্জ একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে বলে প্রতিমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় উল্লেখ করেন ।

উল্লেখ্য যে, বন্যা পরিস্থিতির বিষয়টি বিবেচনায় শিপইয়ার্ডে নির্মাণাধীন ৬০টি বোটের মধ্যে অতি অল্প সময়ে এই ৮টি বোটের নির্মাণকাজ সম্পন্ন করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের নিকট হস্তান্তর করা হয় । অবশিষ্ট ৫২টি বোটের নির্মাণকাজ আগামী বছরের মধ্যেই সম্পন্ন হবে বলে আশা করা যায় । গত ২১ জুলাই ২০২০ তারিখ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সাথে ডিইডব্লিউ লিঃ, নারায়ণগঞ্জ এর মধ্যে ৬০টি রেসকিউ বোট নির্মাণে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ।

ইন্দোবাংলা/এম. ই

নিউজটি শেয়ার করুন


এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ