শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
নৌযানের যাত্রীভাড়া ৩০ ভাগ সমন্বয় করে পুনর্নির্ধারণ শোক দিবসে নানা কর্মসূচী হাতে নিয়েছে কৃষিবিদ ড. আওলাদ বঙ্গবন্ধু বাংলার শান্তি, অগ্রগতি ও সাম্যের অবিসংবাদিত নেতা জয়পুরহাটে চিত্রাংকন, গ্রন্থপাঠ ও কুইজ প্রতিযোগিতাদের পুরস্কার বিতরণ করেন এসপি মাছুম পঞ্চগড় থেকে মানসম্মত শিক্ষা অর্জনের নয়া যাত্রা হবে- প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব বিএনপিসহ কিছু দল ও প্রতিষ্ঠান জ্বালানি তেলের মূল্য নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে- তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ‘স্মার্ট সোসাইটি’ প্রকল্প বিষয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে সচিবালয়ে আলোকচিত্র প্রদর্শনী স্বেচ্ছা রক্তদানের চর্চা পারিবারিকভাবে ছড়িয়ে দিতে হবে- মোস্তাফা জব্বার জাতীয় শোক দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন বিষয়ক নির্দেশনা

১৭ কোটি মানুষের দৃষ্টি পদ্মার পাড়ে- এনামুল হক শামীম

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণে বাংলাদেশের আর্থিক সক্ষমতা ও সাহস বৃদ্ধি পেয়েছে। এই নির্মাণের মাধ্যমে বাংলাদেশ ৫০ বছর এগিয়ে গেল। পদ্মার অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আগামীতে বড় প্রকল্প নিজস্ব অর্থায়নে করার সক্ষমতা তৈরি হলো। আগামী ২৫ জুন ১৭ কোটি মানুষের দৃষ্টি থাকবে পদ্মার পাড়ে।

রবিবারে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসনের সাথে ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রস্ততি সভায় তিনি একথা বলেন।

এনামুল হক শামীম বলেন, পদ্মা সেতু শুধু ইট পাথর আর স্টিলের সেতু নয়, এটি আমাদের আবেগ ভালবাসা ও আত্মবিশ্বাসের প্রতীক। স্বাধীনতার পর আমাদের এটি বড় অর্জন। এই প্রকল্পের মাধ্যমে জনগণের সাথে সরকারের সম্পর্ক আরো মজবুত হয়েছে। কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই ঘোষণা করেছেন জনগণের সাড়া না পেলে পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হতো না। এ সেতু নির্মাণের ফলে দক্ষিণবঙ্গের যোগাযোগ ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন হবে। কর্মসংস্হান বৃদ্ধি পাবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান স্মরণকালের সেরা হবে জানিয়ে উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে সেতুর দক্ষিণপাড়ের ২১ জেলার মানুষের মধ্যে আনন্দের বন্যা শুরু হয়েছে। সবাই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শরীক হতে চান। সংযুক্ত হতে চান ইতিহাসের সাক্ষী হিসেবে। এ জন্য যারা প্রবাসী তারাও যোগাযোগ রাখছেন। কেউ কেউ ইতোমধ্যে দেশে ফিরেছেন। ফেরার অপেক্ষায় অনেকে ।

উপমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা ক্ষমতায় আছেন বলেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী যে স্বপ্ন দেখান সেটাকে বাস্তবায়ন করেন। তিনি আগামী প্রজন্ম নিয়ে ভাবেন। তাঁর সততা ও দক্ষতা এবং মেধার কারণে আজ বাংলাদেশ বিশ্বের বিস্ময়।

জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসানের সভাপতিত্বে সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, নাহিম রাজ্জাক ও পারভিন হক সিকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে সহ জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন।

ইন্দোবাংলা/আর. কে

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্কবার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে (+880963871280, 01710629562) যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি।

 


করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২২।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি