শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
জয়পুরহাট-১ আসনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মিঠু জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার ১০ নম্বর জার্সিতে ফুটবল খেললেন ডিসি, করলেন গোল

ইউক্রেনে ‘শান্তিপূর্ণ সমাধানে’ গুতেরেসের প্রচেষ্টাকে সমর্থন

যমুনা নিউজ বিডিঃ ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর থেকে প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মতিক্রমে একটি বিবৃতি গৃহীত হয়েছে। এতে ইউক্রেনে ‘দ্বন্দ্ব’-এর ‘শান্তিপূর্ণ সমাধানে’ জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেসের প্রচেষ্টার প্রতি ‘দৃঢ় সমর্থন’ জানানো হয়।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা এ তথ্য জানায়।

খুবই সংক্ষিপ্ত পরিসরে অনুষ্ঠিত বৈঠকে গৃহীত সংক্ষিপ্ত এ বিবৃতিতে ‘যুদ্ধ’, ‘সংঘাত’ অথবা ‘আগ্রাসন’ এমন কোনো শব্দ ব্যবহার করা হয়নি।

নিরাপত্তা পরিষদের অনেক সদস্য একে রাশিয়ার সামরিক পদক্ষেপ হিসেবে অভিহিত করেছে। যদিও মস্কো একে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ হিসেবে উল্লেখ করে আসছে।

নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য হচ্ছে— রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য।

বিবৃতিতে বলা হয়, জাতিসংঘের মহাসচিব শান্তিপূর্ণ সমাধানের যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন তাতে নিরাপত্তা পরিষদ দৃঢ় সমর্থন জানাচ্ছে।

এদিকে নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতিকে স্বাগত জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস।

তিনি বলেন, ‘আজ, প্রথমবারের মতো, নিরাপত্তা পরিষদ ইউক্রেনে শান্তির জন্য একই সুরে কথা বলল।’

‘বিশ্বকে অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করতে এবং জাতিসংঘ সনদের মূল্যবোধ বজায় রাখার জন্য এক কাতারে আসতে হবে’, বলেন তিনি।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়া। প্রায় আড়াই মাস হয়ে গেলেও যুদ্ধ বন্ধের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এমন পরিস্থতিতে জাতিসংঘ মহাসচিব মস্কো ও কিয়েভ সফর করেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি