সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

বগুড়া ধনুটে শিশু শিক্ষার্থীকে দুই ভাইয়ের পালাক্রমে ধর্ষন

ময়না টিভি সংবাদাতাঃ বগুড়ার ধুনট উপজেলায় টেলিভিশন দেখার কথা বলে ঘরে ঢুকে আপন দুই ভাই পালাক্রমে এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেছে। ধর্ষণকালে শিশুটি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন দুই ভাই। বগুড়ার ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ি ইউনিয়নের রুদ্রবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গোপন সংবাদে ভিত্তিতে ধুনট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক নয়ন শেখ (১৬) কে গ্রেফতার করে। নয়ন শেখ উপজেলার রুদ্রবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে। বুধবার ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার শিশুটি (১১) রুদ্রবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা। তার মা-বাবা জীবিকার তাগিদে ঢাকায় অবস্থান করেন। শিশুটি তার দাদা-দাদির কাছে থেকে স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণীতে লেখাপড়া করে। তাদের অভাব অনটনের সংসার। শিশুটির দাদা ও দাদী সরকারি মানবিক সহায়তা কার্যক্রমের তালিকায় নাম উঠানোর জন্য সোমবার রাত ১০টার দিকে চৌকিবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যান। এ সময় ওই শিশুটি তার ছোট ভাইয়ের সাথে দাদার ঘরে টেলিভিশন দেখতে ছিল। তখন টেলিভিশন দেখার কথা বলে ওই ঘরে প্রবেশ করেন প্রতিবেশী আব্দুল মজিদের ছেলে ফজল সেখ (২৪) ও তার ছোট ভাই নয়ন সেখ (১৬)। টেলিভিশন দেখার এক পর্যায়ে ফজল ও নয়ন পালাক্রমে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এসময় শিশুটি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে দুই ভাই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে রাত ১১টার দিকে শিশুটির দাদা-দাদি বাড়ি ফিরে আসেন। ঘরের ভেতর বিবস্ত্র অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকা শিশুটির মুখে ঘটনা শুনে থানায় খবর দেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নয়ন শেখকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে ফজল ও তার ছোট ভাই নয়নের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ মনিরা আকতার বলেন, ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নয়ন শেখ ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। তাকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এই মামলার আরেক আসামী ফজলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি