সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

প্রেম নিয়ে গবেষণা সাধারণত কোন বয়সের ছেলে মেয়েরা প্রেমে আকৃষ্ট হয় বেশী।

 

পোস্ট ঃ ৩০

প্রেম এটি যে কোনো বয়সেই হতে পারে কিন্তু গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে বয়স ১৪ থেকে ৩২ বছর এর যে কোনো ছেলে কিংবা মেয়ে প্রেম বেশি করে থাকে। আমেরিকা, ব্রিটেন, চীন, যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা তে ৪০৯ জন সাইকোলজি বিভাগের বিভিন্নরকম বয়সের মানুষের উপর ৩ মাস ৯ দিন রিচার্স করা হয় ১৯৮৯ সালের জানুয়ারি মাসের ২৩ তারিখ থেকে এ রিচার্স শুরু করা হয়। রিচার্সে পাওয়া যায় ১৪ থেকে ৩২ বছর পর্যন্ত প্রেম মানুষ বেশি করে থাকে। দীপু নামে একটি ছোট ভাই প্রশ্ন করেছে ম্যাম কে{ Ahouna Tasnim Khan ম্যাম কে} প্রশ্নটি ছিলো আপু আমি প্রেম করতাম ০৫ বছর থেকে হঠাৎই সে নাকি অন্যের বউ হয়েছে এখন আমি কি করবো? হুম এটিকে ডক্তরের ভাষায় আসলে বলে “”সাইনো হিপোক্রেসি ডিপ্রেশন। “” এখানে সাইনো বলার কারণ হচছে মানবশরীর এ শিরা উপশিরা আছে এই শিরা উপশিরা যখন অতিরিক্ত চাপে রক্ত আপ-ডাউন করে অর্থাৎ আমাদের শরীরে যখন হাই প্রেসার এর মতো নানাবিধ অসুখ সহ ডি হাইড্রেসন মাথা ব্যথা হয় তখনই একে সাইনো বলা হয়। হিপোক্রেসি ডিপ্রেশন মানে অহেতুক চিন্তা করা। এ থেকে সহসাই মুক্তি পেতে যা করা উচিত। সেগুলো নিম্নোক্ত ঃ

১. নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত রাখা যেমন স্টুডেন্ট লাইফে ব্রেকআপ হলে বই পড়া, বিনোদনের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়া পছন্দের জায়গায়।

২. পরিবারকে সময় দেয়া অবসর সময়ে।

৩ . বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা ও জীম করা। ৪. অবশ্যই প্রাক্তন গার্ল ফ্রেন্ড এর কোনো প্রকার গিফট ও মানি ব্যাগে গার্ল ফ্রেন্ড এর বা লেডিস পার্টসে ছবি না রাখা।

বিঃদ্রঃ ইলেকট্রনিক ডিভাইস মোবাইল ল্যাপটপ ট্যাবলেট থেকে দূরে থাকা কারণ এগুলো নিয়ে থাকলে প্রাক্তন কে মনে পড়বে কারণ মেসেঞ্জার, ফেসবুক, ফোন মেসেজে বেশি কথা হতো। এরকম নিয়মিত ৪০ দিন করলে ক্রমান্বয়ে প্রাক্তনের ভুলে যেতে সক্ষম হবেন। এটি যে কোনো সময় থেকে করা সম্ভব। শুধু আত্ম বিশ্বাস রাখতে হবে নিজের উপর। আর ৪০ দিন বললাম কারণ মানব মস্তিষ্ক ৪০ দিন বা ৬ সপ্তাহ একটি কাজ নিয়মিত করলে সেটিকে মাইন্ড অর্থাৎ মস্তিষ্কের নিউরণে আটকে যায়। যা সাইটেন্টিফিকালি প্রভেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি