সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

ব্যাংক লোন নিয়ে যারা ফ্ল্যাট কিনতে আগ্রহী

সচেতনতামূলক পোস্ট। ব্যাংক লোন নিয়ে যারা ফ্ল্যাট কিনতে আগ্রহী তাঁদের সুবিধার্থে আমার আজকের পোস্ট, ব্যাংকার বন্ধুরা ক্ষমা করবেন। আমি ২০১০ সালে HSBC ব্যাংক থেকে ১৫ বছর মেয়াদী ২৭,৫০,০০০/- টাকা ঋণ নিয়ে ৪৫ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলাম। চুক্তি ছিল ৯.৯৯% হারে সূদ নিবে। সেই হিসাবে মাসিক কিস্তি পরিশোধের পরিমান ছিল ২৭,৫০০/- টাকার মত। পরবর্তী এক বছরের মধ্যে সূদের হার বেড়ে গেল পর্যায়ক্রমে ১৪% পর্যন্ত এবং মাসিক কিস্তি গিয়ে ঠেকল ৩৪,০০০/- টাকায়। আমার পরিকল্পনা ছিল পাঁচ বছর পরে এক কালিন বাকী টাকা নগদ পরিশোধ করে ঋণ মুক্ত হব। যথারীতি পাঁচ বছর পরে ব্যাংকে গেলাম বকেয়ার হিসাব নিতে। ব্যাংক জানাল আমার ২৬,২৫,০০০/- টাকা বকেয়া আছে। আমি তো অবাক, এটা কিভাবে হয়, কারন আমি ইতি মধ্যে ২২ লক্ষ টাকা পরিশোধ করে ফেলেছি। কারন জিজ্ঞেস করাতে ব্যাংক বলল, “আপনার ১৫ বছরের ঋনের সূদ অগ্রিম হিসাব করে মাসিক কিস্তির সাথে ৯৫% হারে কেটে নেয়া হচ্ছে এবং গৃহ ঋণের এটাই নিয়ম”। অর্থাৎ এই পাঁচ বছরে আমার ঋণের আসল কাটা গেছে মাত্র ৫% হারে। আমার মাথার উপর আাকাশ ভেঙ্গে পড়ার মত অবস্থা। পরে নিজের বোকামি বুঝতে পেরে সিদ্ধান্ত নিলাম আর এই ফাঁদে পা দিবনা, অন্যত্র অনেক মূল্যবান প্রপার্টি বিক্রি করে ব্যাংকের বকেয়া টাকা এক কালীন পরিশোধ করলাম। অতএব বন্ধুগন, প্রয়োজনে ঋণ নিন, তবে আগে টার্মস্ কন্ডিশন গুলি ভাল করে বুঝে নিবেন। না হয় আমার মত ভুলের চরম মাশুল দিতে হবে। #ধন্যবাদ। **বর্তমানে, IDLC, DBH, সহ অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান সবার ক্ষেত্রে সুদের হার ১৪%,১৩%,১২%। সবাইকে এ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য অনুরোধ রহিল। Loan নেয়ার ক্ষেত্রে সবাই সচেতন হই,নিজে সচেতন হই, অন্যকে সচেতন করি।আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিবেন না। এ ফাঁদ থেকে কখনও বের হতে পারবেন না। জীবন শেষ হয়ে যাবে, কিন্তু ঋণ শেষ হবে না।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি