বুধবার, ০৭ Jun ২০২৩, ১২:২২ অপরাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
পাটের বস্তার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিতে কঠোর হবে সরকার -বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সংক্রান্ত দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রবাসীদের সোচ্চার হতে হবে -মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী সিদ্ধিরগঞ্জে জমির ছবি তোলায় গণমাধ্যম কর্মীর উপরে হামলা হাতির আক্রমণ হতে মানুষের জানমাল রক্ষায় কাজ করছে সরকার – পরিবেশমন্ত্রী কারো লাঠিয়াল না কি রাজনৈতিক দল হবে তা বিএনপিরই সিদ্ধান্ত – তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী মহান মে দিবসে রাষ্ট্রপতির বাণী এ বছর চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২ কোটি ২০ লাখ টন – কৃষিমন্ত্রী মহান মে দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী ঈদুল ফিতরে রেলযাত্রা স্বস্তিদায়ক হওয়ায় রেলমন্ত্রীর সন্তুষ্টি প্রকাশ

তিন বিঘা করিডোর পরিদর্শনে আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বহুল আলোচিত দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা তিন বিঘা করিডোর পরিদর্শন করতে আসছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এ ছাড়া বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও এক মতবিনিময় সভায় যোগ দেবেন।

আজ শুক্রবার (৬ মে) ভোর থেকে বিজিবি ও বিএসএফ করিডোর এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করে দুই দেশের মানুষকে তল্লাশি শুরু করেছে।

এর আগে ২০১৫ সালে ৩১ মার্চ ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময়ের আগে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং তিন বিঘায় এসেছিলেন। ছিটমহল বিনিময়ের পর এই প্রথম তিন বিঘায় আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বর্তমানে বিএসএফের জলপাইগুড়ি সেক্টরের ৬ নম্বর ব্যাটালিয়ন তিন বিঘা করিডোরের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে।

জানা গেছে, দীর্ঘ ৪৭ বছর পর ১৯৯২ সালে ভারতের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তির ভিত্তিতে বহুল আলোচিত দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল পায় বাংলাদেশ। এরপর সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এক ঘণ্টা পরপর করিডোর দিয়ে বাংলাদেশিদের যাতায়াতের সুযোগ দেওয়া হয়। করিডোর দিন-রাত খোলা রাখার জন্য দাবি উত্থাপিত হলে ২০০১ সালে ২৭ এপ্রিল থেকে তা সকাল সাড়ে ৬টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত খোলা রাখার ব্যবস্থা করা হয়।

সর্বশেষ গত ২০১১ সালে ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনা-মনমোহন বৈঠকে স্বাক্ষরিত চুক্তি মোতাবেক বাংলাদেশিদের যাতায়াতের জন্য তিন বিঘা করিডোর বর্তমানে ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখা হচ্ছে।

৫১ বিজিবি পানবাড়ি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার খাইরুল ইসলাম বলেন, ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তিন বিঘা করিডোর পরিদর্শন করবেন। ৫১ বিজিবির পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হবে। তবে বাংলাদেশের মানুষদের সঙ্গে কথা বলবেন কি না, এমন তথ্য বিজিবির কাছে নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২২।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি