রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

খুটাখালীতে সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম, নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার

আবুহুমাইর হোছেন বাপ্পি,কক্সবাজার প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে এলজিইডির একটি সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম করা হচ্ছে। সড়কটিতে নিম্নমানের খোয়া ব্যবহারের পাশাপাশি নির্দিষ্ট পরিমাণের চেয়েও কম খোয়া এবং বালু ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়া সড়কের পাশে নিয়ম অনুযায়ী গাইড ওয়াল নির্মাণ করেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এমনকি ১০ ফুটের জায়গায় কোথাও কোথাও ৬/৭ ফুট রাস্তায় খোয়া ঢেলে দায়সারাভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

এঘটনায় স্থানীয়রা সড়ক নির্মান কাজে কয়েক দফে বাঁধা দিলে ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের লোকজন কোন পাত্তাই দিচ্ছেন না বলে জানা গেছে।

উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সিকদারপাড়া-হান্তিরছড়া গ্রামে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের আওতাধীন সড়টির কার্পেটিংয়ের কাজটির দায়িত্বে রয়েছেন চকরিয়ার একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্টান।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) চকরিয়া কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গুরুত্বপূর্ণ গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন অগ্রাধিকার-৩ প্রকল্পের আওতায় খুটাখালী ইউনিয়নের হাফেজখানা টু হাজীপাড়া সড়কের দৈর্ঘ্য ৭৮০ মিটার ও প্রস্থ ৩ মিটার।

সড়কের কার্পেটিং কাজের নির্মাণ ব্যায় বরাদ্দ হয়েছে ৬৭ লাখ টাকা। প্রথম শ্রেনীর একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজটি পেলেও মূলত সড়কটির নির্মাণ কাজে দায়িত্ব পালন করছেন কনক নামের একজন লোক। সরজমিন সোমবার সকালে সড়কের অনিয়ম দেখতে গেলে ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের ঐ কর্মকর্তা গা ঢাকা দেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সড়কটির নির্মাণ কাজে নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে। হান্তিরছড়া এলাকায় নামে মাত্র ইট বসিয়ে কোথাও ৭ ফুট বা ৮ ফুট করে রাস্তা তৈরী করা হয়েছে। ছড়াখালের পাশে নির্মিত এ সড়ক বর্ষা মৌসুমে ধ্বসে পড়ার আশংকা রয়েছে।

সিকদারপাড়া এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে অভিযোগের ভিত্তিতে ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আবদুর রহমান সরেজমিনে গিয়ে ঠিকাদারকে মৌখিক সতর্ক করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, কনক প্রভাবশালীদের আস্করায় তিনি নির্মাণ কাজে অনিয়ম করছেন। সড়ক নির্মাণ কাজে নজরদারি করে মানসম্মত কাজ করানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

তারা আরো জানান, সড়কের পাশের খালে যে গাইড ওয়াল নির্মাণ করা হয়েছে তাতেও কারচুপি করা হয়েছে। কোথাও আরসিসি ডালাই আবার কোথাও ইটের গাঁথুনি দিয়ে গাইড ওয়াল নির্মাণ করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা নেজাম উদ্দীন, তৈয়ব তাহের, মিনহাজ উদ্দিন, আবুল কাশেম, মোস্তাক আহমদ ও জয়নাল জানান, হান্তির ছড়া এলাকাতে এলজিইডি সড়ক নির্মান কাজের মধ্যে ব্যাপক অনিয়ম চলছে। বিষয়টি একাধিকবার ঠিকাদার ও চেয়ারম্যানকে জানানো হয়েছে।

তাদের অভিযোগ, ছড়াখাল সংলগ্ন হান্তির ছড়ায় রাস্তা উন্নয়নের নামে চলছে হরিলুট। যেখান বক্স করে শুরুতে বালি, ইটের কোয়া দেয়ার পর রোলার চালানোর কথা সেখানে কিছুই করা হয়নি। সড়কের কোথাও ৭ ফুট,কোথাও ৮ফুট। নেই পর্যাপ্ত গাইউওয়াল। মাটিযুক্ত বালি আর দুই নাম্বার ইটের খোয়া দিয়ে চলছে সড়ক উন্নয়ন কাজ।

এ ব্যাপারে সড়ক নির্মাণ কাজের দায়িত্বে থাকা লোকজন বলেন, রাস্তায় ব্যবহৃত খোয়া ভালো মানের। নিয়ম অনুযায়ী তারা কাজ করে যাচ্ছেন।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এলজিইডি’র চকরিয়া উপজেলা প্রকৌশলী কমল কান্তি পাল জানান, ঠিকাদারকে একাধিকবার বলে দেয়া হয়েছে কাজের মান ঠিক রাখার জন্য। সিডিউল অনুযায়ী কাজ না করলে কোন বিল দেওয়া হবে না।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি