বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

প্রতীকী চেয়ারম্যান হয়ে যেসব সমস্যা তুলে ধরলেন জারিন

ইন্দোবাংলা প্রতিনিধি, জয়পুরহাট:

নেশা জাতীয় মাদক শিশু-কিশোরদের গ্রাস করছে। শহরের অলিগলি বা রাস্তার পাশের মোড়, দোকান গুলোতে কড়া পদক্ষেপের সঙ্গে ঠিকমতো মনিটরিং না করার কারণে এটি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জয়পুরহাটের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে এক ঘণ্টার প্রতীকী দায়িত্ব নিয়ে এমন সমস্যার কথা জানিয়েছেন ন্যাশনাল চিলড্রেন টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ) জেলা কমিটির সহ-সভাপতি জারিন আনান সাবা। বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জারিনের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম সোলায়মান আলী। সেখানে সাবা বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

প্রতীকী দায়িত্ব নিয়ে জারিন আনান সাবা বলে, জয়পুরহাটের বিভিন্ন স্তরের শিশু, কিশোর-কিশোরীদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, স্কুল, কোচিং সেন্টার এবং ছাত্র-ছাত্রীদের চলাচলের জায়গাগুলোতে কিশোর গ্যাংদের উৎপাত বেশি হয়েছে। এই অপরাধে যারা জড়িয়ে পড়ছে তাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া সম্ভব হচ্ছে না। এই কিশোর গ্যাং কোনো না কোনো রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় ক্ষমতা সম্পন্ন। এদের মধ্যে অনেকই ভালো সম্ভ্রান্ত পরিবারের।

সাবা বলে, উন্নতির শিখরে দেশ যখন আধুনিকতায় ছেয়ে গেছে ঠিক অপর পৃষ্টে অভিভাবকদের অসচেতনতা সহ বিভিন্ন কারণে এই দেশে নারী এবং কন্যা শিশুদের বিভিন্ন সমস্যার প্রতিচ্ছবি প্রতিনিয়ন দেখতে পাচ্ছি। এ কাজ তার একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ জন্য সবার সহযোগিতা কামনা করে সাবা।

অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যান এসএম সোলায়মান আলী বলেন, কন্যাশিশু দিবস উপলক্ষে ‘গার্লস টেকওভার’ অনুষ্ঠান সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। প্রতীকী চেয়ারম্যান দায়িত্ব পেয়ে জারিনের বক্তব্যে যা বলা হয়েছে, তা বাস্তবায়নে তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশা ব্যক্ত করেন।

এনসিটিএফের জেলা কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় সাংবাদিক আব্দুল আলিমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা মহিলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সাবিনা আকতার চৌধুরী, ভলন্টিয়ার ফর বাংলাদেশের সদস্য সালেহুর রহমান সজিব।

জারিন আনান সাবা জয়পুরহাট সদর থানা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। সে শহরের সরদারপাড়া মহল্লার ইয়াসিন আলী মোল্লা ও মৃত রোকসানা আক্তারের মেয়ে।

ইন্দোবাংলা/সিকে

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি