বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ০৫:১১ অপরাহ্ন

সরকারি জরুরি হটলাইন

সরকারি তথ্য ও সেবা-৩৩৩, জরুরি সেবা-৯৯৯, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে-১০৯, দুদক-১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তা-১০৯০, শিশুর সহায়তায় ফোন-১০৯৮, ভূমির সেবা পেতে...অভিযোগ জানাতে-১৬১২২, ই-জিপি জরুরি হেল্পলাইন-১৬৫৭৫, নৌপরিবহনের হেল্পলাইন-১৬১১৩। তথ্য সুত্র : পিআইডি

শিরোনাম
মানুষ এখন শখ করে পান্তা ভাত খায় : খাদ্যমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশের অংশীদার হই, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং ও মাদকমুক্ত রই’ জয়পুরহাটে সমবায়ীদের তোপের মুখে যুগ্মনিবন্ধক ডিএমপি কমিশনার হলেন অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় বৈশ্বিক সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী সার্বিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা ‘হু’ প্রধানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মার্কিন কাউন্সিলর ডেরেক শোলের সাক্ষাৎ বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ কেবল শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব : সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অর্থ আত্নসাৎ, দুই বছর বেতন বাড়বে না সমাজসেবা কর্মকর্তার

বগুড়ার মহাস্থানে শেষ বৈশাখী উপলক্ষে আইন শৃংখলা বিষয়ক আলোচনা সভা

মহাস্থান প্রতিনিধিঃ সোমবার বিকেলে মহাস্থান মাজার চত্বরে বৈশাখ মাসের শেষ বৃহস্পতিবার (বৈশাখী মেলা) মহাস্থান মাজার কেন্দ্রিক পবিত্র ওরস উদযাপন উপলক্ষে আইন শৃংখলা বিষয়ক আলোচনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে কুলসুম সম্পার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা  চেয়ারম্যান  ফিরোজ আহমেদ রিজু।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (শিবগঞ্জ সার্কেল) মোঃ তানভির হাসান, সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ আজাহার আলী, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক কুমার দাস পিপিএম, রায়নগর ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি, মহাস্থান মাজার মসজিদ কমিটির প্রশাসনিক কর্মকর্তা জাহেদুর রহমান, রায়নগর ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন লালু, বেলাল হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মহাস্থান মাজার মসজিদের কর্মকর্তা ও সাংবাদিক ওবায়দুর রহমান।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, “মহাস্থান একটি পুণ্যভুমি, এখানে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন আসবে তারা যেনো নির্বিঘ্নে অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারে সে জন্য মহাস্থানের সকল মানুষকে সচেতন থাকতে হবে। কোনো প্রকার মাদক কারবারি যেনো তাদের অপকর্ম চালাতে না পারে  সেদিকে সু-নজর রাখতে হবে। আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষণিক তাদের টহল অব্যাহত রাখবে পাশাপাশি জনগনকে সজাগ থাকতে হবে”।

সহকারী পুলিশ সুপার তানভীর হাসান বলেন, হযরত শাহ সুলতানের এই পুণ্যভুমি মহাস্থান এলাকায় যাদের বাড়ি তারা অবশ্যই ভাগ্যবান। দুর-দুরান্ত থেকে যে লাখ লাখ লোক এখানে আসে তাদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যত প্রকার সহযোগিতা প্রয়োজন, পুলিশ প্রশাসন সে সহযোগিতা করতে কোনো প্রকার ত্রুটি করবেনা। গত অনুষ্ঠানে প্রায় ৪০০ শত আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা তৎপর ছিলো। এবার প্রয়োজনে আরো বৃদ্ধি করা হবে। এ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে কেউ যেনো কোনো প্রকার অপরাধ সংঘটিত করতে না পারে সে জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন”।

সভাপতির বক্তব্যে ইউএনও উম্মে কুলসুম সম্পা বলেন সুষ্ঠু ভাবে এ পবিত্র অনুষ্ঠান সম্পাদন করতে বগুড়া জেলা প্রশাসক সহ আমরা যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো। সে ব্যাপারে ডিসি মহোদয়ের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। অনুষ্ঠান শান্তিপুর্ণ করতে যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

সংবাদ শেয়ার করুন

সতর্ক বার্তা

আমরা নিজস্ব সংবাদ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। -ইন্দোবাংলা টীম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

© ইন্দোবাংলা২৪.কম সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩।
কারিগরি সহায়তায়: অল আইটি